1. admin@ukbanglanews.com : admin :
শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০১:০৪ অপরাহ্ন

প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিকাশ প্রতারককে গ্রেপ্তার করালেন ছাত্রী

uk-bangla news
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২০
  • ১২৫ বার
বিকাশে প্রতারণার শিকার হয়েছিলেন রাজশাহীর নিউ গভ. ডিগ্রী কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের এক ছাত্রী। প্রতারকরদের একটি সংঘবদ্ধ চক্র কৌশলে পিন কোড চুরি করে তার বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকে হাতিয়ে নিয়েছিল নগদ ৫১ হাজার টাকা।

ওই কলেজছাত্রীর বাবা রাজশাহী মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা শাখায় অভিযোগ দিলে তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে তাদের অবস্থান চিহ্নিত করে। পরে পুলিশের পরামর্শে ভিকটিম ওই প্রতারক চক্রের একজনের সঙ্গে শুরু করেন প্রেমের অভিনয়। প্রেম জমে উঠলে ওই প্রতারক ফরিদপুর থেকে কলেজ ছাত্রীর সঙ্গে দেখা করতে আসে রাজশাহীতে। তখন এক সহযোগীসহ ওই প্রতারককে গ্রেপ্তার করেছে রাজশাহী মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের সদস্যরা।

advertisement

আটক দুইজন হলেন: ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার জাঙ্গালপাশা মধ্যপাড়া গ্রামের আবদুল খানের ছেলে হাসান খান (১৯) এবং জাঙ্গালপাশা পূর্বপাড়া গ্রামের নূর মোহাম্মদ শেখের ছেলে মাহমুদ হাসান ওরফে বায়েজিদ (১৯)। পুলিশ বলছে, এরা পেশাদার প্রতারক। মুঠোফোনে কল দিয়ে তারা কৌশলে বিকাশের পিন নম্বর হাতিয়ে নেয়। এরপর সরিয়ে ফেলে বিকাশের টাকা।

গত রবিবার (২৯ নভেম্বর) বিকেলে রাজশাহী নগরীর লক্ষ্মীপুর মোড়ে ওই কলেজছাত্রীর সঙ্গে দেখা করতে আসে দুই প্রতারক। সোমবার (৩০ নভেম্বর) তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

রাজশাহী নগর গোয়েন্দা পুলিশের উপ-কমিশনার (ডিসি) আবু আহাম্মদ আল মামুন এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানান, ভুক্তভোগী ওই ছাত্রী রাজশাহী নিউ গভ. ডিগ্রি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী। গত ১৬ নভেম্বর তার মুঠোফোনে অচেনা একটি নম্বর থেকে কল আসে। ওই ব্যক্তি ছিল প্রতারক হাসান। তবে সে নিজেকে ওই শিক্ষার্থীর কলেজের শিক্ষক পরিচয় দেয়। সে বলে, করোনাকালে বিকাশের মাধ্যমে সরকার শিক্ষার্থীদের বৃত্তি দিচ্ছে। কিন্তু যে নম্বরে বৃত্তি পাঠানো হবে সেই বিকাশে অন্তত ৫০ হাজার টাকা থাকতে হবে। তাহলেই এই নম্বরে সরকার টাকা পাঠাবে। পরে ওই শিক্ষার্থী তার অভিভাবকের সঙ্গে কথা বলে বিকাশে ৫০ হাজার টাকা তোলেন। আর তার বিকাশে আগে থেকেই কিছু টাকা ছিলো। ওই ছাত্রী বিকাশে টাকা তোলার পর প্রতারক হাসান কৌশলে তার পিন নম্বরটি জেনে নেয়। এরপর সে ওই ছাত্রীর বিকাশ থেকে ৫১ হাজার টাকা সরিয়ে নেয়। পরে প্রতারণার বিষয়টি টের পেয়ে ওই ছাত্রী গোয়েন্দা পুলিশের কাছে যান। পুলিশ সবকিছু শোনার পর ওই প্রতারকের সঙ্গে ছাত্রীকে কথাবার্তা বলার পরামর্শ দেন। মেয়েটি অন্য একটি নম্বর থেকে তার সঙ্গে কথা শুরু করে। প্রতারক মেয়েটিকে চিনতে না পেরে প্রেমের ফাঁদে পড়ে রাজশাহী এলে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। আটকের সময় দুইজনের কাছে মোট ৭৬ হাজার টাকা পাওয়া গেছে। এদের বিরুদ্ধে ভুক্তভোগী ওই ছাত্রীর বাবা নগরীর রাজপাড়া থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা করেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2024 UK বাংলা News
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!